সখীপুরে পৌর মেয়রসহ চারজনের কোভিড শনাক্ত

আবু হানিফ আজাদকরোনা সংক্রমণের খবর পাওয়ার পর স্বাভাবিক শ্বাসপ্রশ্বাসে সমস্যা হওয়ায় টাঙ্গাইলের সখীপুর পৌরসভার মেয়র মুক্তিযোদ্ধা আবু হানিফ আজাদকে (৬৮) রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টায় তাঁকে অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় পাঠানো হয়। তিনি আজ বুধবার ভোররাত সাড়ে চারটায় ওই হাসপাতালে ভর্তি হন।

গতকাল রাত ১১টার দিকে টাঙ্গাইল সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে তাঁর কোভিড-১৯ শনাক্তের খবর জানানো হয়। মেয়র ছাড়াও সখীপুরে আরও তিনজনের করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে সখীপুরে ৩৩ জনের দেহে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হলো।

আজ সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবদুস সোবহান এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিসংখ্যানবিদ আসমা আক্তার জানান, গত রোববার মেয়র আবু হানিফ আজাদের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। গতকাল রাতে তাঁর করোনা পজিটিভ হওয়ার খবর পাওয়া যায়। এ ছাড়া উপজেলা কৃষি কার্যালয়ের অফিস সহায়ক (৫০), পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা ডিমের আড়তের কর্মচারী (৩৪) ও তাঁর স্ত্রী (২৭) করোনা পজিটিভ।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবদুস সোবহান বলেন, গতকাল রাতে পৌরসভার মেয়রের কোভিড শনাক্তের খবর পাওয়ার পর তাঁর স্বাভাবিক শ্বাসপ্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দেয়। পরে তাঁকে রাত দেড়টায় সরকারি অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ছাড়া সখীপুরে আরও তিনজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে উপজেলায় মোট শনাক্ত দাঁড়াল ৩৩ জনে। এ পর্যন্ত উপজেলা থেকে ৫৭৭টি নমুনা পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে ৫৫৩টি নমুনার ফলাফল পাওয়া গেছে। ইতিমধ্যে ১৪ জন বাড়িতে থেকেই সুস্থ হয়েছেন।

সখীপুর পৌরসভার মেয়র আবু হানিফ আজাদের ছেলে কামরুল হাসান আজ সকালে প্রথম আলোকে বলেন, ঢাকার হাসপাতালে তিনি স্বাভাবিক অবস্থাতেই রয়েছেন। আস্তে আস্তে উন্নতি হচ্ছে। তিনি তাঁর বাবার সুস্থতার কামনা করে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: