লোহাগড়া পৌর এলাকা আজ থেকে লকডাউন

প্রতীকী ছবিকোভিড রোগীর সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাওয়ায় আজ বুধবার থেকে ১৪ দিন নড়াইলের লোহাগড়া পৌর এলাকায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। নড়াইল-২ আসনের সাংসদ মাশরাফি বিন মুর্তজার নির্দেশনায় উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক ও ব্যবসায়ীরা আলোচনা করে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এদিকে, উপজেলায় নতুন করে ১৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে পৌর এলাকায় রয়েছেন ১২ জন। এ নিয়ে উপজেলায় কোভিড রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১৮৬। আজ বুধবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এ তথ্য জানিয়েছে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, পৌর এলাকার ওষুধ, সার ও কীটনাশকের দোকান ছাড়া অন্য সব ধরনের দোকান বন্ধ থাকবে। কাঁচামাল ও মাছের দোকান বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে ভ্রাম্যমাণ অবস্থায় পরিচালিত হবে। লকডাউনের ১৪ দিনের মধ্যে পৌর এলাকার বাসিন্দাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়ের সুবিধার্থে ১১, ১৪ ও ১৭ জুলাই সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শুধু মুদি দোকান খোলা থাকবে। পৌর এলাকায় ভ্যান, ইজিবাইকসহ সব ধরনের তিন চাকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে যেতে পারবেন না।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, ২৮ জনের নমুনার মধ্যে আজ ১৫ জনের করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছেন। শনাক্তের হার ৫৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ। এক সপ্তাহ ধরে এ উপজেলায় আশঙ্কাজনকভাবে কোভিড রোগী বাড়ছে। এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ১৮৬ জন। তাঁর অধিকাংশই লোহাগড়া পৌর এলাকায়।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, লোহাগড়া পৌর এলাকায় প্রবেশপথগুলোয় তল্লাশিচৌকি বসানো হয়েছে। সেখানে পুলিশ সদস্য ও স্বেচ্ছসেবীরা টহলে থাকবেন। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ পৌর এলাকায় ঢুকতে পারবেন না। পৌর এলাকার বাসিন্দারা জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হতে পারবেন না।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: