রিজেন্ট হাসপাতালের মতো খাতা না দেখেই রেজাল্ট দেয়ার অনুরোধ জানালো শিক্ষার্থীরা

১৪টি অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায় র‍্যাব। এগুলার মধ্যে তাদের প্রথম অপরাধ, তারা করোনার নমুনা পরীক্ষা না করেই রিপোর্ট তৈরি করত। রিজেন্ট হাসপাতাল এ পর্যন্ত দুইশর বেশি কোভিড রোগীর চিকিৎসা দিয়েছে। এর মানে অলরেডি ২০০ জনের নমুনা পরীক্ষা বাদেই রেজাল্ট দেয়া হয়ে যাওয়ার কথা। তবে এই ভয়ংকর খবরেও আবার আশার আলো দেখছেন শিক্ষার্থীরা। রিজেন্ট হাসপাতালের ব্যবহৃত আইডিয়া স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রয়োগের অনুরোধ জানিয়েছে বাংলার আপামর শিক্ষার্থীবৃন্দ।

 

জনৈক স্কুলছাত্র অভিমানে গাল ফুলিয়ে আমাদের বলেন, ‘একটা হাসপাতাল যদি ২০০ জনের পরীক্ষা না করে রেজাল্ট দিতে পারে তাহলে আমার ক্লাসের ৭০টা খাতা না দেখে রেজাল্ট দিলে কি এমন ক্ষতি?’

এদিকে দীর্ঘদিন চাতক পাখির মত বসে থাকার পর অবশেষে এইচিএসসি পরীক্ষার্থীরাও গুহার মধ্যে এক টুকরো আলো দেখতে পেয়েছেন। তারা এক গ্রুপ পোস্টে বলেছেন, ‘অন্তত এইবার আমাদের রেজাল্ট দিন৷ পরীক্ষা ছাড়াও যে রেজাল্ট দেয়া যায় সেটা তো সাহেদ স্যার দেখিয়েছেন।’ এ সময় কমেন্ট সেকশনে গিয়ে দেখা যায়, অনেকেই রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদকে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক হিসেবে পদায়ন করার জোরদাবি জানাচ্ছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও এ ব্যাপারে সহমত পোষণ করেছেন। করোনা শেষে আসন্ন সেশন জট এড়াতে রিজেন্ট হাসপাতালের এই পদ্ধতি হতে পারে একমাত্র নিয়ামক, এমনটা জানিয়েছেন তারা। অনেকে আবার বিসিএস পরীক্ষাতেও এই পদ্ধতি চালুর পক্ষে মত দিয়েছেন। তারা বলেন, ‘দীর্ঘ মেয়াদী বিসিএসকে এক বছরে শেষ করতে রিজেন্ট হাসপাতালের পদ্ধতিতেই এগোতে হবে।’ এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যানকে পিএসসির চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই’ নামক ইভেন্ট খুলে সেখানে দলে দলে গোয়িং দিতে শুরু করেন।

 

আরও পড়ুন-

বাইচান্সের লাইসেন্স নাই, তাই আমাদেরও নাই: রিজেন্ট হাসপাতাল

রিজেন্ট হাসপাতাল যে ১২টি সম্ভাব্য ‘পদ্ধতি’তে করোনা পরীক্ষা করিয়েছে

‘ক্যাচ মি ইফ ইউ ক্যান’ পদক পাচ্ছেন রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদ করিম





আরও পড়ুন eআরকিতে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: