করোনায় বিরতির পর আবার শান্তিরক্ষী পাঠানো শুরু

শান্তিরক্ষা মিশনকরোনা পরিস্থিতিতে সাময়িক বিরতির পর মালি মিশনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর রোটেশন শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর)। বুধবার (৮ জুলাই) সেনাবাহিনীর তিনটি কন্টিনজেন্টের ২৯ জন অফিসার, ১০ জন জেসিও এবং অন্যান্য পদবীর ৯২ জনসহ ১৩১ জনের প্রথম দল হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে মালির উদ্দেশে যাত্রা করেছেন।

আইএসপিআর জানায়, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত চার মাস অন্যান্য শান্তিরক্ষী পাঠানো দেশের মতো বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের রোটেশন কার্যক্রমও স্থগিত ছিল। ফলে শান্তিরক্ষীদের পর্যায়ক্রমিক মিশন এলাকায় পাঠানোর কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছিল। এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস আগামী ডিসেম্বর (২০২০) পর্যন্ত একটি সময়োপযোগী নির্দেশিকা দিয়েছেন। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এই নির্দেশনা অনুসরণ করে ব্যবস্থা নিয়েছে। ফলে আবারও নিয়মিত রোটেশন শুরু হয়েছে।

বুধবার (৮ জুলাই) মিনুসমা (মালি) মিশনের প্রথম রোটেশন ফ্লাইটে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে বাংলাদেশ ১৩১ জনের প্রথম দলটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে মালির উদ্দেশে যাত্রা করেছে। পরবর্তীতে আগামী ১৪ ও ১৮ জুলাই আরও দুটি ফ্লাইটে ৪২২ জন এবং আগস্ট মাসের প্রথম দুই সপ্তাহে আরও তিনটি ফ্লাইটে ৬৫০ জন শান্তিরক্ষী মালি যাবেন।

একইসঙ্গে আগামী ১০, ১৫ এবং ১৮ জুলাই ৫৫৩ জন এবং আগস্টের প্রথম দুই সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইটে ৬২৭ জনসহ এক হাজার ১৮০ জন শান্তিরক্ষী মালিতে এক বছর তিন মাস শান্তিরক্ষা কার্যক্রম সফলতার সঙ্গে শেষ করে দেশে ফিরে আসবেন।

 

 





আরও পড়ূন বাংলা ট্রিবিউনে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: