তুুর্কি সিরিজ ‘বাহার’ নিয়ে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলন

ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে দীপ্ত সংশ্লিষ্টরাদেশীয় দর্শকদের কাছে তুর্কি সিরিজ প্রচার ও প্রসারের ক্ষেত্রে সবচেয়ে এগিয়ে দীপ্ত টিভি। শুরু থেকেই চ্যানেলটি প্রচার করে আসছে বাংলায় ডাব করা সিরিজগুলো। যার সবগুলোই জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

সেই ধারাবাহিকতায় এবার যুক্ত হচ্ছে ‘বাহার’। এটি প্রচার শুরু হবে ১১ জুলাই থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টা ও রাত ৯টায়।
এই উপলক্ষে ৮ জুলাই বিকালে দীপ্ত টিভির কর্তারা অন্যরকম এক সংবাদ সম্মেলন করেছে। চলমান করোনাকাল বিবেচনা করে এটি হয়েছে ভার্চুয়াল মাধ্যমে। জানা গেছে, টেলিভিশন সেক্টরে এমন সম্মেলন এটিই প্রথম।
এতে উপস্থিত ছিলেন দীপ্ত টিভির সিইও ফুয়াদ চৌধুরী, মার্কেটিং বিভাগের প্রধান মোঃ মোজাম্মেল হোসেনসহ দীপ্ত টিভির অন্যান্য কর্মকর্তাগণ। সাংবাদিকদের সামনে তারা ‘বাহার’-এর প্রচার সময় ও গল্প ভাবনা তুলে ধরেন।
তারা জানান, এক নারীর জীবন-সংগ্রামকে উপজীব্য করে, তুরস্কের সামাজিক প্রেক্ষাপটে নির্মিত হয়েছে ‘বাহার’। দোরুক আর নিসান নামের ছোট্ট দুই সন্তানকে ঘিরেই মা বাহারের জীবন। কয়েক বছর আগে এক দুর্ঘটনায় বাহার তার স্বামী সার্পকে হারায়, কিন্তু স্বামীর অনুপস্থিতি সে তার সন্তানদের বুঝতে দেয় না। বাহার সবসময় নিজের ও তার স্বামীর পরিচয়ের গল্প, প্রেম-বিয়ের কথা এমনভাবে তার সন্তানদের শোনায়, যেন ওরা বাবাকে কাছে না পেলেও তার সুন্দর স্মৃতিগুলো নিয়ে বেড়ে উঠতে পারে।
‘বাহার’-এর দুটি স্থিরচিত্রবাহার তার সন্তানদেরকে সর্বোচ্চ ভালোবাসা আর সুন্দর শৈশব উপহার দিতে চায়, কারণ খুব ছোটবেলায় বাহারের মা তাকে ছেড়ে গিয়েছিলো।
সিরিজটির অভিনয়শিল্পী ও ডাবিং শিল্পীদের তালিকাটি এমন- বাহার চেশমেলি (মেরিনা মিতু), সার্প চেশমেলি (শফিকুল ইসলাম), নিসান চেশমিল (নাদিয়া ইকবাল ইশরা), দোরুক চেশমিল (আনিরা মিশেল রিভা), আরিফ (আলবিনো জর্জ পাইক), এনভার সারিকাদি (অশোক কুমার বসাক), হাতিজে সারিকাদি (সাকি ফারজানা), শিরিন সারিকাদি (নিগার সুলতানা মিমি), জেইদা (ইন্দ্রানী ঘটক), জালে দেমির (নাহিদা আখতার ইমু), মুসা দেমির (আশিক কুমার বসাক) ও ইয়েলিয (পর্ণা মিটিল্ডা কস্তা)।





আরও পড়ূন বাংলা ট্রিবিউনে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: