করোনার শঙ্কা এখন নোয়াখালীতে: অসুস্থ ২৪

0

কোভিট-১৯ সন্দেহে নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার জাহাজমারা ইউনিয়নে রাতুল (২২) নামের এক কাতার প্রবাসীকে কোয়ারেন্টাইন রাখা হয়েছে। কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসী রাতুল আবুল কালামের ছেলে।

এদিকে বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে হঠাৎ করে অসুস্থ হওয়া ২৪ শিক্ষার্থীকে কয়েক ঘন্টা আইসোলেসন রাখার পর প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। অসুস্থ শিক্ষার্থীদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। তবে তারা সবাই প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, গত ৯ মার্চ সোমবার বিকেলে কাতার থেকে বাংলাদেশে আসে রাতুল। তিনি কাতারে থাকা কালিন দীর্ঘ ১৫দিন ধরে জ্বরে ও কাশিতে ভুগছেন। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার উপসর্গগুলো দেখে করোনা সন্দেহে তাকে নিজ বাড়ীতে কোয়ারেন্টাইন এ থাকার অনুরোধ করেন।

হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মোহাম্মদ ইউছুফ জানান, সকালে রাতুলের ভগ্নিপতি আব্দুর রহিম তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার জ্বর, গলা ব্যাথা, কাশি ও মাথা ব্যাথা এসব উপসর্গ দেখে সন্দেহ হওয়ায় কাতার প্রবাসী রাতুলকে নিজ বাড়ীতে কোয়ারেন্টাইন রাখা হয়েছে। তার ভগ্নিপতি রহিমকেও কোয়ারেন্টাইনে থাকার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে একলাশপুর ইউনিয়নের আটবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২-৩ জন শিক্ষার্থী জ্বর ও কাশি নিয়ে বিদ্যালয়ে আসে। এর কিছুক্ষণ পর বিদ্যালয়ে পাঠদান চলাকালে আরো কয়েকজনসহ মোট ২৪ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকদের সহযোগিতায় বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কক্ষের মধ্যে তাদের আইসোলেসন করে রাখার কয়েক ঘন্টা পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসিম কুমার দাস বলেন, অসুস্থ শিক্ষার্থীদের কয়েক ঘন্টা আইসোলেসনে রাখা হয়েছিল। বেশির ভাগ শিক্ষার্থীর শরীরে জ্বর রয়েছে। অসুস্থ শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাদের পরিবারের সদস্যদের কিছু দিক নির্দেশনা দিয়ে শিক্ষার্থীদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আবহাওয়া পরিবর্তন বা গণহিস্টিরিয়া (আতংক জনিত রোগ) কারণে তারা অসুস্থ হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নোয়াখালী জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস বলেন, হাতিয়ার প্রবাসী রাতুলকে পরীক্ষা করা ছাড়া এখনো কিছু বলা যাচ্ছেনা। যেহেতু তিনি কাতারে থাকাকালিন দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ তাই বিষয়টি নিয়ে আইইডিসিআর যোগাযোগ করা হয়েছে, বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ থাকায় আপাতত তাকে তার বাড়ীতে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। ১৪ দিন পর তাকে ঢাকায় প্রেরণ করা হবে।

কেআই/এসি

Loading...

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More