ছয় দফা দাবিতে মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টদের কর্মবিরতি পালন

ছয় দফা দাবিতে দেশের সব সরকারি হাসপাতাল ও চিকিৎসা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কর্মরত মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টরা কর্মবিরতি কর্মসূচি পালন করেছেন। বাংলাদেশ মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (বিএমটিএ) এর আহবানে বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) বেলা ১১টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত দুই ঘণ্টা এ কর্মবিরতি পালন করা হয়। তবে অব্যাহত ছিল জরুরি সেবা। নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের সামনে দাঁড়িয়ে টেকনোলজিস্টরা বলেছেন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের উদাসীনতার কারণে মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টরা কর্মবিরতির মতো কর্মসূচি পালন করতে বাধ্য হয়েছেন।

একইসঙ্গে বিএমটিএর সভাপতি আলমাছ আলী খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগ অবিলম্বে তাদের দাবি বাস্তবায়ন না করলে বুধবার সব সরকারি হাসপাতাল এবং চিকিৎসা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জরুরি সেবা কার্যক্রম অব্যাহত রেখে সকাল ১০টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত তিন ঘণ্টার কর্মবিরতি পালন করা হবে।

এরআগে, মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টরা গত ৫ জুলাই সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং বেকার মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টদে ও বয়সোত্তীর্ণদের নির্বাহী আদেশে নিয়োগ, মেডিক্যাল টেকনোলজিস্টদের বেতন স্কেল দশম গ্রেডে উন্নীতকরণ, ডিপ্লোমা মেডিক্যাল এডুকেশন বোর্ড চালু, নতুন পদ তৈরি, অস্বচ্ছ প্রক্রিয়াতে নিয়োগ বাতিলসহ বিভিন্ন দাবি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন। সেদিন তাদের দাবি আদায় না হলে আজকের কর্মবিরতির ঘোষণা দেন তারা।

আলমাছ আলী খান জানান, আজকের কর্মবিরতির সময় হাসপাতালগুলোতে প্যাথলজিক্যাল, ব্লাড ব্যাংক, রেডিওলজিক্যাল, ফিজিওথেরাপি, ডেন্টাল, রেডিওথেরাপি বিভাগের রোগীদের পরীক্ষানিরীক্ষা ও স্বাভাবিক সেবা কার্যক্রম ব্যাহত হয়। করোনা পরীক্ষার পিসিআর ল্যাব কর্মবিরতির আওতায় থাকার কারণে রোগীর নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষায় প্রভাব পড়লেও সীমিত আকারে জরুরি সেবা চালু ছিল।

 





আরও পড়ূন বাংলা ট্রিবিউনে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: