সড়কে পড়ে ছিল অটোরিকশাচালকের গুলিবিদ্ধ লাশ

ছবিটি প্রতীকীযশোরের মনিরামপুর উপজেলার একটি সড়কে পড়ে ছিল ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাচালকের গুলিবিদ্ধ ও গলাকাটা লাশ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার হরিদাসকাটি ইউনিয়নের দিগঙ্গা কুচলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পূর্ব পাশে নওয়াপাড়া-মনিরামপুর সড়কের ওপর থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

লাশ উদ্ধার করা ওই ব্যক্তির নাম রফিকুল ইসলাম বিশ্বাস (৫০)। তিনি উপজেলার মধুপুর গ্রামের ইমারাত আলী বিশ্বাসের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ওই বিদ্যালয় থেকে প্রায় ২০০ গজ পূর্ব দিকে সড়কের ওপর চিত হওয়া অবস্থায় লাশটি পড়ে ছিল। খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ। লাশের বুকের ডান পাশে ও ডান বাহুতে গুলির চিহ্ন এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কাটা ছিল। আর লাশ থেকে কিছুটা দূরে সড়কের পাশে পড়ে ছিল তাঁর অটোরিকশাটি। তবে এটি একটি হত্যাকাণ্ড। অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া থেকে মনিরামপুরে ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা তাঁকে গুলি করে ও গলা কেটে হত্যা করে।

মনিরামপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমান বলেন, এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। নিহত রফিকুল ইসলাম বিশ্বাসের বিরুদ্ধে মনিরামপুর থানায় মামলা আছে বলেও জানান তিনি।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: