মিঠাপুকুরে চিকিৎসক দম্পতির বাসায় দুষ্কৃতকারীদের হানা

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক দম্পতির বাসায় দুষ্কৃতকারীরা হানা দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার ভোরে আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আহসান কবীর ও তাঁর স্ত্রী আফসানা আক্তারের উপজেলা সদরের বাসায় এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে আহসান কবীর মিঠাপুকুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

পুলিশ ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, আহসান কবীর ও তাঁর স্ত্রী একই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক। তাঁরা উপজেলা সদরের চিথলী দক্ষিণপাড়ায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করেন। প্রতিদিনের মতো তাঁরা দায়িত্ব পালন শেষে রাতে বাসায় ঘুমিয়ে পড়েন। বৃহস্পতিবার ভোর চারটার দিকে জানালার পাশে হঠাৎ বিকট শব্দে টের পান তাঁরা। এ সময় তাঁরা দেখেন জানালা খোলা। বাইরে থেকে আহসান কবীরের গলায় কাপড় জড়ানো হয়েছিল। এ সময় ওই দুষ্কৃতকারীরা তাঁদের ভয়ভীতি দেখায়। এ ছাড়া একটি ধারালো ছুরি দেখিয়ে তাঁদের হুমকিও দেওয়া হয়।

চিকিৎসক আহসান কবীর প্রথম আলোকে বলেন, ‘চার-পাঁচজন মুখোশধারী ব্যক্তি একটি খোলা জানালার গ্রিলের ভেতর দিয়ে কাপড় ঢুকিয়ে আমার গলায় জড়ানো হয়। একপর্যায়ে বাইরে থেকে এই কাপড় টান দিতে থাকে। আমার দম বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছিল। আমি ও আমার স্ত্রী ভয়ে খাটের নিচে লুকানোর চেষ্টা করি। চিৎকার দিলে তারা আমাদের আরও ভয়ভীতি দেখিয়ে সেখান থেকে সটকে পড়ে।’

মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা চিকিৎসক আবদুল হাকিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, চিকিৎসকের বাড়ির জানালার গ্রিলের ভেতর দিয়ে হামলা করার চেষ্টা করেছিল দুষ্কৃতকারীরা। তিনি নিজে থানায় এসে ঘটনা জানিয়ে একটি জিডি করেছেন। পুরো ঘটনাটি তদন্ত চলছে। অপরাধীদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: