রিয়ালে হঠাৎই একটু করোনা-আতঙ্ক

ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। ছবি: টুইটারশুক্রবার (১০ জুলাই) আলাভেসের সঙ্গে খেলতে নামবে রিয়াল মাদ্রিদ। তার আগে করোনাভাইরাস সংক্রমণ হতে পারে এমন সন্দেহে ও সতর্কতার অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার অনুশীলন করতে দেওয়া হয়নি দলের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ভিনিসিয়ুস জুনিয়রকে।

করোনাভাইরাসের কারণে তিন মাস পর ফুটবল আবার মাঠে ফিরেছে গত মাসে। মাঠে ফেরার আগে বারবার করোনা পরীক্ষা দিতে হয়েছে, এখনও নির্দিষ্ট সময় পর পরীক্ষা দিতে হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে রিয়াল খেলোয়াড়দের আরেক দফা পরীক্ষা দিতে হয় যাতে ভিনিসিয়ুসের পরীক্ষায় ত্রুটি (এরর) ধরা পড়েছে। কোনও উপসর্গ যদিও ব্রাজিলিয়ান তরুণের শরীরে নেই, তবু সতর্কতার অংশ হিসেবেই তাকে বৃহস্পতিবারের অনুশীলনে রাখা হয়নি। রিয়াল বিকেলেই আবার নতুন করে হওয়া তার পরীক্ষার ফলের অপেক্ষায় ছিল। করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট এলেই তাকে দলে রেখে আলাভেসের সঙ্গে ম্যাচের পরিকল্পনা সাজাবেন কোচ জিনেদিন জিদান।  

ঘরের মাঠে আলাভেস ম্যাচের আগেরদিন জিদান ভিনিসিয়ুসের ব্যাপারে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘এটা নেগেটিভও নয়, পজিটিভও নয়। কখনও কখনও পরীক্ষায় এরকম ত্রুটি ধরা পড়ে। এটা ধরা পড়তেই আমরা এবং লা লিগা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে খেলোয়াড়টিকে (ভিনুসিয়ুস) অনুশীলন করতে দেওয়া হবে না।’

ফরাসি ফুটবল মহাতারকা জানিয়েছেন আবারো নেওয়া পরীক্ষার ফল পক্ষে এলে ভিনিসিয়ুস তার পরিকল্পনায় থাকবেন, ‘আমরা দেখবো কী হয়। আজ বিকেলেই আবারও তার পরীক্ষা হবে এবং আমি আশা করি সে আগামীকাল (শুক্রবার) আমাদের সঙ্গে থাকবে।’

দুই মৌসুম পর আবার যে রিয়াল মাদ্রিদের লা লিগা শিরোপা পুনরুদ্ধারের আশা উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে, তার পেছনে ভিনিসিয়ুসের অনেক অবদান। দুর্দান্ত গতিতে প্রতিপক্ষের রক্ষণ তছনছ করে ফেলছেন ১৯ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান। গোল করছেন, সতীর্থকে দিয়ে করাচ্ছেন। সবকিছুর যোগফল অনাকাঙ্ক্ষিত করোনা-বিরতির পর টানা সাত ম্যাচ জয়, তাতে মূল প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার চেয়ে দুই পয়েন্ট পিছিয়ে থেকেও কার্যত চার পয়েন্টে এগিয়ে যাওয়া।

এদিকে করোনা-সতর্কতার অংশ হিসেবে স্বেচ্ছা-বিচ্ছিন্ন থাকতে হচ্ছে রিয়ালের ২২ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড লুকা ইয়োভিচকে। এক বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন, সেই বন্ধু পরে করোনা-পজিটিভ হয়েছেন। সন্দেহ বশত ইয়োভিচ নিজেই পরীক্ষা করিয়েছিলেন, রিপোর্ট নেগেটিভ। তবে স্পেন সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী আইসোলেশনে যেতেই হয়েছে সর্বশেষ আথলেতিক ম্যাচের একেবারে শেষদিকে বদলি নামা সার্বিয়ান ফরোয়ার্ডকে।

যে প্রতিশ্রুতি নিয়ে ইয়োভিচ এসেছিলেন রিয়ালে, সেটির এখনও পূরণ করতে পেরেছেন অতি সামান্যই। তার অভাব খুব একটা অনুভূত হবে না। তবে ভিনিসিয়ুসকে রিয়ালের ভীষণ দরকার। বাকি আছে চারটি ম্যাচ। এর মধ্যে প্লে-মেকার এডেন হ্যাজার্ডকে এস্পানিওল ম্যাচে আবার অ্যাঙ্কেলে চোট পেয়ে টানা দুই ম্যাচ খেলেননি। তবে বিইএন-স্পোর্টস জানিয়েছে, তাকে আলাভেস ম্যাচে পাওয়ার আশা করছেন জিদান। ‘কনকাসানের’ কারণে সর্বশেষ ম্যাচটি না খেলতে পারা রাফায়েল ভারানকেও ফিরে পাচ্ছেন রিয়াল কোচ।

   





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: