ফ্রিল্যান্সারদের স্বীকৃতি ও সিনেমা হল বাঁচাতে বিশেষ তহবিল গঠনের পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে একনেক সভায় যোগ দিয়ে ‘টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট : বাংলাদেশ অগ্রগতি প্রতিবেদন ২০২০’ এর মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রীফ্রিল্যান্সারদের সামাজিক ও প্রাতিষ্ঠানিক স্বীকৃতি কিভাবে দেওয়া যায় তার উপায় বের করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে তিনি বলেছেন, সিনেমা হল মালিকরা চাইলে সরকার তাদেরকে ঋণ দিয়ে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করবে। এ জন্য বিশেষ তহবিল গঠনেরও প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।
মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ‘শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন’ প্রকল্প অনুমোদন দিতে গিয়ে এসব মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। একনেক সভা শেষে এ তথ্য জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।
ফ্রিল্যান্সাররা ভালো আয় করেন, ওরা স্মার্ট। কিন্তু সামাজিক ও প্রাতিষ্ঠানিক স্বীকৃতি না থাকায় ওদের বিয়ে করতে সমস্যা হয়। এসব কারণেই তা নিয়ে চিন্তা করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ফ্রিল্যান্সাররা কোনও সংস্থা থেকে রেজিস্ট্রেশন পেতে পারে কিনা, কোনও সংগঠনের সদস্য হতে পারে কিনা বা তাদের কেউ সার্টিফিকেট দিতে পারে কিনা এসব বিষয় নিয়েও ভাবতে বলেছেন তিনি।
অপরদিকে সিনেমা হল বাঁচাতে বিশেষ উদ্যোগের প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ জন্য বিশেষ তহবিল গঠনেরও প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি। সিনেমা হল মালিকরা চাইলে সরকার এই তহবিল থেকে তাদেরকে ঋণ দিয়ে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করা হবে বলেও জানান তিনি।
একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সিনেমা হল মালিকরা কেউ আসে না, কেউ ভাড়া দিয়ে গেছে। আবার কেউ বিক্রি করে দিয়েছে। কেউ সিনেমা হল ভেঙে বহুতল ভবনও করছে। হল মালিকরা যদি সমঝোতা করতে চায়, চালাতে চায়, তাহলে একটা বিশেষ তহবিল করে তাদেরকে আমরা সহযোগিতা করবো।





আরও পড়ূন বাংলা ট্রিবিউনে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: