সাহেদের বিরুদ্ধে মামলা করার কথা ভাবছে স্বাস্থ্য অধিদফতর

রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো.সাহেদ (ছবি রিজেন্ট গ্রুপের ওয়েবসাইট থেকে সংগৃহীত)রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো. সাহেদের বিরুদ্ধে মামলা করার কথা ভাবছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। স্বাস্থ্য অধিদফতরের মুখপাত্র ডা. আয়েশা আক্তার বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানান।
বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) রাতে ডা. আয়েশা আক্তার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, তার বিরুদ্ধে র‌্যাব মামলা করেছে, তাকে খুঁজছে। কিন্তু সংক্রামক ব্যাধি আইন ( ২০১৮) অনুসারে তার বিরুদ্ধে মামলা করার কথা ভাবছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এগুলো প্রক্রিয়াধীন রয়েছে, প্রস্তুতি নিতে তো একটু সময় দরকার। র‌্যাব, দুদক ( দুর্নীতি দমন কমিশন) তদন্ত করছে।
ডা. আয়েশা আক্তার বলেন, রিজেন্টে তো অনেক ভুয়া রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে, তার মানে হচ্ছে রোগটাকে লুকানো হয়েছে। যদি পজিটিভ হওয়া কাউকে নেগেটিভ বলে থাকে, সেগুলো তো সব ফলস। তাহলে এই যে পজিটিভ রোগীদের দ্বারা রোগটা ছড়িয়ে গেল। কেবল এই কারণেও সংক্রামক ব্যাধি আইন অনুসারে তার বিরুদ্ধে মামলা করা যায়। এ বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর ভাবছে।
প্রসঙ্গত, গত ৬ জুলাই সাহেদের মালিকানাধীন রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এই হাসপাতালের বিরুদ্ধে নমুনা টেস্ট না করেই রোগীদের করোনার রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগ পায় তারা। এ ঘটনায় উত্তরা পশ্চিম থানায় রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ, এমডি মাসুদ পারভেজসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়। এ ঘটনায় ৯ জন গ্রেফতার হয়। তবে সাহেদ এখনও পলাতক। হাসপাতাল দুটি ও রিজেন্ট গ্রুপের অফিস সিলগালা করে দিয়েছে র‌্যাব।
সাহেদের বিরুদ্ধে মানুষের সঙ্গে অসংখ্য প্রতারণার অভিযোগ পাচ্ছে র‌্যাবে। র‌্যাবের গণমাধ্যম ও আইন শাখার পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান, সাহেদকে গ্রেফতারের জন্য র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More