টেকনাফে ৩ লাখ ইয়াবাসহ ২ রোহিঙ্গা সদস্য আটক

 টেকনাফের হোয়াইক্যংয়ে অভিযান চালিয়ে তিন লাখ ইয়াবা ও দেশীয় অস্ত্রসহ দুই রোহিঙ্গা মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব-১৫) সদস্যরা। শুক্রবার (১০ জুলাই) টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং বালুখালী (তুলাতুলি) এলাকা থেকে ইয়াবাসহ তাদের আটক করা হয়।

আটক মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন উখিয়ার বালুখালী ৮ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডব্লিউ ব্লক-এ, ১৯ নম্বরের বাসিন্দা মো. ইলিয়াছের ছেলে মো. শফিক (২৫) এবং হোয়াইক্যং বালুখালী তুলাতুলি এলাকার কোলা মিয়া গুনা পাড়ার আবুল কাশেমের ছেলে আব্দুল করিম (২২)।

কক্সবাজার র‌্যাব ক্যাম্পের সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী স্বাক্ষরিত এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, র‌্যাব সদস্যরা জানতে পারেন হোয়াইক্যং বালুখালী (তুলাতুলি) জামে মসজিদ থেকে অনুমান ১৫০ ফুট দক্ষিণে কক্সবাজার-টেকনাফ পাকা রাস্তার পাশের কালভার্টের নিচ দিয়ে প্রবাহিত ছোট ছড়া দিয়ে পায়ে হেঁটে অস্ত্রধারী মাদক ব্যবসায়ীরা বড় চালান নিয়ে আসছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল ওই এলাকায় পৌঁছায়। র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাঁধে থাকা দুটি পাটের বস্তা তল্লাশি করে তিন লাখ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আটকদের সঙ্গে থাকা অজ্ঞাতনামা আরও তিন জন পালিয়ে যায় বলে জানায় র‌্যাব।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, আটকরা জানিয়েছে পলাতক আসামিদের সহযোগিতায় দীর্ঘদিন ধরে তারা মাদকদ্রব্য ও ইয়াবা ট্যাবলেট মিয়ানমার থেকে নাফনদী দিয়ে কৌশলে বাংলাদেশে পাচার করছে। উদ্ধার ইয়াবাসহ আটক আসামিদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: