ইয়ারপডস, চার্জার ছাড়াই ‘বাড়বে’ নতুন আইফোনের দাম!


বছরের শেষ নাগাদ নতুন আইফোন বাজারে আনতে পারে অ্যাপল। মাঝেমধ্যেই সামনে আসছে নতুন এই ডিভাইসটি নিয়ে নানা তথ্য। এবারে নতুন আইফোনের বাজার মূল্য বিষয়েও ধারণা দিয়েছেন অ্যাপল বিশ্লেষক জেফ পু।

ইউয়ান্টা ইনভেস্টমেন্ট কনসাল্টিংয়ের এই বিশ্লেষকের দাবি, তার ভাষায় ‘অশ্রু ঝরানো দামি’ হতে পারে নতুন আইফোনের দাম। অ্যাপল বিষয়ের খবরের সাইট ম্যাকরিউমার্সকে দেওয়া এক নথিতে পু বলেছেন নতুন আইফোন ১২ এর বাজার মূল্য শুরু হতে পারে ৭৪৯ মার্কিন ডলার থেকে।

গত বছরের আইফোন ১১ এর সবচেয়ে সস্তা মডেলের মূল্য ছিল ৬৯৯ মার্কিন ডলার।

এবারে আইফোন ১২ এর বাক্সের মধ্যে ইয়ারপডস বা চার্জার নাও রাখতে পারে প্রযুক্তি জায়ান্ট মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। তারপরও বাড়তে পারে ডিভাইসটির দাম।

পু বলছেন, ডিভাইসের দাম বাড়ানোর ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ হতে পারে ৫জি সমর্থন।

ইতোমধ্যেই ৫জি আইফোন উন্মোচন করেছে অ্যাপলের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠানগুলো। সেদিক থেকে এখনও পিছিয়ে অ্যাপল। তবে, এ বছরই ৫জি ডিভাইসের তালিকায় নাম লেখাতে পারে প্রতিষ্ঠানটি।

পু’র ধারণা ঠিক হলে আইফোন ১২ এর চেয়ে আইফোন ১২ ম্যাক্স-এর দাম ৫০ থেকে ১০০ ডলার বেশি হতে পারে।

৫জি’র পাশাপাশি নতুন আইফোন ১২ এ আরও কিছু দারুণ ফিচার থাকতে পারে।

আইফোন ১১ এর মতো আইফোন ১২ এও পেছনে দুইটি ক্যামেরা রাখতে পারে অ্যাপল। আর আইফোন ১২ প্রো মডেলের পেছনে তৃতীয় আরেকটি টেলিফটো লেন্স যোগ করতে পারে প্রতিষ্ঠানটি।

সাধারণত বছরের সেপ্টেম্বর নাগাদ নতুন আইফোনের উন্মোচন ইভেন্ট আয়োজোন করে অ্যাপল। এবারে করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে উন্মোচন ইভেন্ট পেছাবে বলেও এখন পর্যন্ত ধারণা।



আরও পড়ুন Techzoom এ

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: