লক ডাউনের খবর গুজব গাইবান্ধায় আক্রান্ত দু’জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে

0

 

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি
করোনা ভাইরাস সংক্রমন ও প্রতিরোধে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্যে রোববার বিকেলে গাইবান্ধা শহরের কেন্দ্রস্থলে শহীদ মিনার সংলগ্ন জনবহুল পৌর পার্কটি অনির্দিষ্ট কালের জন্য লক ডাউন ঘোষণা করেছেন পৌর মেয়র অ্যাড. শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন। ফলে পৌর পার্কে যাওয়া থেকে জনগণকে বিরত থাকতে বিনীত অনুরোধ জানানো হয়েছে এবং পৌর পার্কের সকল দোকানপাট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এই লক ডাউন অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে বলেও তিনি উলেখ করেন। এদিকে শহরের খাঁপাড়ায় আমেরিকা প্রবাসী জনৈক গৃহবধু প্রতিমা সরকার ও তার সন্তান বাংলাদেশে বাড়িতে বেড়াতে এসে তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং তাদের শরীরে করোনা ভাইরাস পজেটিভ প্রমাণিত হয়। ফলে তাদেরকে তাদের নিজ বাড়িতে পুলিশ প্রহরায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

অপরদিকে সাদুল্যাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নবীনেওয়াজ স্বাক্ষরিত ২২ মার্চের ০৫.৫৫. ৩২৮২. ০০০. ১৮.১০৭. ১৯. ২৬২ স্মারক নং এক পত্রে সাদুল্যাপুর রোববার উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নে হবিবুলাপুর গ্রামে কাজল মন্ডল পিতা শচিন্দ্র নাথ মন্ডলের বোনের বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণকারী দুজন আমেরিকা প্রবাসী আত্বীয় করোনা পজেটিভ হিসাবে সনাক্ত হয়েছেন। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রায় পাঁচশ লোক দাওয়াত প্রাপ্ত হয়ে উপস্থিত ছিলেন। এ অবস্থায় ভাইরাসটি দ্রুত সংক্রামণ ঘটতে পারে মর্মে আশু সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে অত্র উপজেলার সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্যে সাদুলাপুর উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে সাদুলাপুর উপজেলা কোভিড ১৯ এর লকডাউন সিন্ধান্ত গ্রহন করে মর্মে পত্রে উলেখ করা হয় এবং এব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে পত্রটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রেরিত হয়।

সাদুল্যাপুর উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শাহিনুর ইসলাম জানান, সাদুল্যাপুর উপজেলার হবিবুলাপুর গ্রামের কাজল চন্দ্র মন্ডলের বোনের বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণে তার বাড়ীতে আমেরিকা প্রবাসী দু’জন আত্মীয় (যারা গাইবান্ধা শহরের খাপাড়ায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে) কাজল চন্দ্র মন্ডলের বাড়ীতে ১১ ও ১২ মার্চ অবস্থান করে ১৩ মার্চ বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের নিমন্ত্রণ খেয়ে গাইবান্ধা শহরের খাঁ পাড়ায় নিজ বাড়ীতে চলে যায়। তিনি আরও জানান, পরে তাদের দু’জনের নমুনা ঢাকায় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়। রোববার ঢাকা আইইডিসিআর থেকে জানানো হয়, ওই দু’জনের নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে।
সিভিল সার্জন ডাঃ এবিএম আবু হানিফ বলেন, সাদুল্যাপুরের হবিবুলাপুরে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত পজেটিভ কোন রোগীর সনাক্ত হয়েছে এই মর্মে কোন তথ্য নেই। সুতরাং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নবীনেওয়াজ স্বাক্ষরিত উলেখিত বিষয়টি সঠিক নয় বলে তিনি উলেখ করেন এবং গুজবে কান না দেয়ার জন্য তিনি সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

এব্যাপারে জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল মতিন জানান, সাদুল্যাপুর উপজেলার ওই গ্রামে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এই মর্মে কাউকে সনাক্ত করা যায়নি। সুতরাং লক ডাউন করার কোন প্রয়োজনীয়তা নেই। প্রকৃত পক্ষে হবিবুলাপুর গ্রামে সন্দেহভাজনদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সাদুল্যাপুর উপজেলাকে লক ডাউন করার সিদ্ধান্তটি সঠিক নয় উলেখ করে এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে কারণ দর্শাও নোটিশ জারি করা হচ্ছে বলেও তিনি উলেখ করেন। সেইসাথে কোন গুজব না ছড়ানোর জন্য সংশিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানান। অপরদিকে করোনা সংক্রমন রোধে জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন,থানা পুলিশ ও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ হতে সাধারণ মানুষ কে সচেতন করতে মাস্ক ও লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। এচাড়াও জেলার সকল উপজেলায় সভা সমাবেশ গণজামায়েত সহ জনসমাগম ঘটনা বন্ধে প্রচার প্রচারণা চলমান রয়েছে।

Loading...

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More