কোম্পানীগঞ্জ সীমান্তে ভারতীয়দের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

সীমান্তের প্রতীকী ছবিসিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার উৎমা সীমান্তে ভারতীয় নাগরিকদের গুলিতে এক বাংলাদেশি নিহত ও একজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত বাংলাদেশি হচ্ছেন মো. বাবুল হোসেন (২০)। তিনি কোম্পানীগঞ্জের লামা গ্রামের বাসিন্দা আমির হোসেনের ছেলে। আহত হয়েছেন একই গ্রামের চান মিয়ার ছেলে মো. কয়েছ মিয়া (২০)। উৎমা সীমান্ত এলাকার পাশের কালাইরাগ এলাকায় গত ২০ জুন ভারতীয় খাসিয়াদের গুলিতে বাবুল বিশ্বাস (৩৪) নামের আরেক বাংলাদেশি নিহত হয়েছিলেন। করোনাকালের ৩ মাসে বিজিবির ৪৮ ব্যাটালিয়ন এলাকায় বিএসএফের হাতে ১ জন ও ভারতীয় খাসিয়াদের হাতে ৪ জন নিহত এবং আহত হয়েছেন ৮ জন। 

বিজিবি সূত্র জানায়, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার উৎমা বিওপির দায়িত্বপূর্ণ এলাকার সীমান্ত পিলার ১২৫৭ /৯-এস সংলগ্ন দিয়ে ২ জন বাংলাদেশি নাগরিক আনুমানিক ৮০০ গজ ভারতের অভ্যন্তরে প্রবেশ করেন। এ সময় ভারতীয় খাসিয়া নাগরিকেরা তাঁদের গুলি করেন। এতে বাংলাদেশি নাগরিক মো. বাবুল হোসেন (২০) গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত ও কয়েছ মিয়া (২০) আহত হন। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় কয়েছ কৌশলে বাংলাদেশে ফিরে এসে পলাতক রয়েছেন। বিকেলে পরিবারের কাছ থেকে বাবুলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

৪৮ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল আহমেদ ইউসুফ জামিল প্রথম আলোকে বলেন, সীমান্তে এই মুহূর্তে অবৈধ চলাচল প্রতিরোধে সীমান্তে টহল ও নজরদারি অব্যাহত রয়েছে। সীমান্তবর্তী এলাকার বাংলাদেশি নাগরিকদের অবৈধভাবে প্রবেশ না করার জন্য বারবার অনুরোধ জানানো হয়েছে। এরপরও অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করার ঘটনা ঘটেছে। ভারতীয় নাগরিকদের হাতে বাংলাদেশি নিহত হওয়ার ঘটনাটির বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বিজিবির পক্ষ থেকে ভারতকে তাগাদা দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

করোনাকালে সিলেটের সীমান্ত এলাকায় প্রথম নিহতের ঘটনা ঘটে গত ২৩ মে। গোয়াইনঘাট উপজেলার জাফলং সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে কালা মিয়া (৩৭) নামের একজন পাথরশ্রমিক নিহত হন। তিনি জাফলংয়ের নয়াবস্তি এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। ওই ঘটনার ১৮ দিনের মাথায় ১০ জুন গোয়াইনঘাটের বিছনাকান্দির পাশের কুলুমছড়া সীমান্ত এলাকায় ভারতীয় খাসিয়াদের গুলিতে মিন্টু মিয়া (২৬) নামের এক বাংলাদেশি নিহত হন। তিনি গরু চরাতে সীমান্ত এলাকায় গিয়েছিলেন। এর ১০ দিনের মাথায় সীমান্তে বাংলাদেশি নিহতের তৃতীয় ঘটনা ঘটে বিজিবির ৪৮ ব্যাটালিয়ন এলাকার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার কলাইরাগ সীমান্তে। ভারতীয় খাসিয়াদের গুলিতে বাবুল বিশ্বাস (৩৪) নামের এক বাংলাদেশি নিহত হন। চতুর্থ ঘটনা ঘটে গত বৃহস্পতিবার গোয়াইনঘাটের বিছনাকান্দি এলাকার দমদম এলাকায়। ভারতীয় খাসিয়াদের গুলিতে নিহত হন সিরাজ মিয়া (৪৫) নামের একজন দিনমজুর। তিনি গরু চরাতে সেখানে গিয়েছিলেন।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: