ই-নথি ব্যবস্থাপনায় শীর্ষস্থানে শিল্প মন্ত্রণালয়

শিল্প মন্ত্রণালয়মধ্যম ক্যাটাগরির ১৫টি মন্ত্রণালয়ের মধ্যে ই-নথি ব্যবস্থাপনায় চলতি ২০২০ সালের জুন মাসেও শীর্ষস্থান অর্জন করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়। এ নিয়ে পরপর চারবার এবং জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ৫ বার ই-নথিতে শিল্প মন্ত্রণালয় প্রথম স্থান অধিকার করলো। রবিবার (১২ জুলাই) শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রোগ্রাম গত জুন পর্যন্ত সময়ে তথ্য পর্যালোচনা করে একটি মূল্যায়ন প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেই প্রতিবেদনে শীর্ষস্থান দখল করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়।

পাশাপাশি ই-নথি ব্যবস্থাপনায় ছোট ক্যাটাগরির ১৮৫টি সরকারি দফতর বা সংস্থার মধ্যে জুন মাসে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দফতর প্রধান বয়লার পরিদর্শকের কার্যালয়।

BT-Newউল্লেখ্য, ডিজিটাল পদ্ধতিতে সেবাদান প্রক্রিয়ায় শিল্প মন্ত্রণালয় শুরু থেকে এগিয়ে রয়েছে। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও শিল্প মন্ত্রণালয় এবং এর আওতাধীন দফতর বা সংস্থাগুলোয় ভার্চুয়াল কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে স্বাভাবিক সময়ের মতো সব কাজ চলেছে। রুটিন মাফিক সব ধরনের পূর্ব নির্ধারিত সভা, মন্ত্রণালয় ও দফতর/ সংস্থার বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ), কর্মকর্তাদের ব্যক্তিগত কর্মপরিকল্পনা (আইএপি) এবং বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত প্রকল্পগুলোর (এডিপি) অগ্রগতি পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ই-ফাইলিংয়ের মাধ্যমে দৈনন্দিন কর্মকাণ্ড ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ অব্যাহত রয়েছে, ফলে মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট অংশীদাররা দ্রুত সেবা পাচ্ছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, শিল্প মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আইসিটি বিষয়ক প্রশিক্ষণ, ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারে উদ্বুদ্ধকরণ এবং ধারাবাহিক মনিটরিংয়ের ফলে শিল্প মন্ত্রণালয়ের ই-নথি কার্যক্রম এবং ডিজিটাল সেবাদানে এ সাফল্য এসেছে।

 





আরও পড়ূন বাংলা ট্রিবিউনে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: