সিংড়ায় পানি ঢুকে পড়েছে পাঁচটি গ্রামে

সিংড়া-কলম সড়কের বলিয়াবাড়ি অংশ নিমজ্জিত। রোববার দুপুরে। ছবি: প্রথম আলোকয়েক দিনের অবিরাম বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলের পানিতে নাটোরের সিংড়া উপজেলার চলনবিলের তীরবর্তী পাঁচটি গ্রামের মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। সিংড়ার ভেতর দিয়ে প্রবাহিত আত্রাই নদের পানি বিপৎসীমার ২০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয় থেকে জানা গেছে, আত্রাই নদের তীরবর্তী আনন্দনগর, বিলদহর, নুরপুর, ভুলবাড়িয়া ও একলাসপুর গ্রামের বাড়িঘর ও ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে। সেখানকার লোকজন পানিবন্দী জীবন যাপন করছেন। কেউ কেউ গৃহপালিত পশু–পাখি নিয়ে অন্যত্র চলে যেতে শুরু করেছেন। সিংড়া-কলম সড়কের বলিয়াবাড়ি অংশ নিমজ্জিত হওয়ায় যেকোনো সময় সড়কটি নদীতে ধসে পড়তে পারে বলে স্থানীয় লোকজন আশঙ্কা করছেন।

স্থানীয় কৃষকেরা জানিয়েছেন, জলাবদ্ধতা দীর্ঘায়িত হলে রোপা আমনের ব্যাপক ক্ষতি হতে পারে। ইতিমধ্যে অনেক জমির ধান পানিতে তলিয়ে গেছে।

সিংড়ার ভুলবাড়িয়া এলাকার বাড়িঘরে পানি উঠেছে। রোববার দুপুরে। ছবি: প্রথম আলোউপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, গত কয়েক দিনের প্রবল বর্ষণে নিচু এলাকা ডুবে গেছে। এবার সিংড়ায় চার হাজার হেক্টর জমিতে রোপা আমন ধান চাষ করা হচ্ছে। পানি দীর্ঘদিন আটকে থাকলে এর বড় একটা অংশ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তবে কৃষি বিভাগ এ ব্যাপারে সজাগ রয়েছে।

সিংড়ার ইউএনও নাসরিন বানু বলেন, ‘খবর পেয়ে আজ রোববার সকালে বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছি। দুর্গত কিছু মানুষের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। প্রশাসন পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৎপর আছে।’





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: