চীনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মাত্রার বন্যা সতর্কতা জারি

ইয়াংজি নদী সংলগ্ন এলাকাগুলোতে ভারী বর্ষণ চলতে থাকায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মাত্রার বন্যা সতর্কতা জারি করেছে চীন। রবিবার (১২ জুলাই) এ সতর্কতা দেওয়া হয়। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানিয়েছে।

চীনে বন্যা সতর্কতা

রবিবার (১২ জুলাই) চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, এ বছর সেদেশে বন্যাজনিত কারণে মারা যাওয়া বা নিখোঁজ হওয়া মানুষের সংখ্যা ১৪১। বন্যায় ৩৫.৩ লাখ হেক্টর কৃষিজমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পানিতে ভেসে গেছে ২৮ হাজার ঘরবাড়ি। অর্থনৈতিক ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ৮,২২৩ কোটি ইউয়ান।

চীনে বন্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য ৪ স্তরের জরুরি সতর্কতা ব্যবস্থা আছে। এর মধ্যে প্রথম বা ১ মাত্রা দিয়ে সবচেয়ে মারাত্মক বন্যা পরিস্থিতি বোঝানো হয়ে থাকে। চীনের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জুলাইয়ের প্রথমদিক থেকে ২১২টি নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে, এরমধ্যে ১৯টি নদীর পানি স্মরণকালের মধ্যে সবচেয়ে বেশি উচ্চতা অতিক্রম করেছে। পরিস্থিতি সবচেয়ে নাজুক ইয়াংসির নদীর অববাহিকায় বলে জানিয়েছে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম।

চীনের সবচেয়ে বড় মিঠাপানির হ্রদ পয়াংয়ের উপচে পড়া পানি ইয়াংসি নদীর সঙ্গে যুক্ত হয়ে বহু শহর ও গ্রাম ডুবিয়ে দিতে পারে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ।

 





আরও পড়ূন বাংলা ট্রিবিউনে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: