এবার ডিএসসিসির লাইসেন্স সুপারভাইজার চাকুরিচ্যুত

ডিএসসিসিশীর্ষ দুই-তিনজন কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করার পর এবার অনিয়মের অভিযোগ ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) রাজস্ব বিভাগের লাইসেন্স ও বিজ্ঞাপন সুপারভাইজার ইকবাল আহমেদকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।
রবিবার (১২ জুলাই) ডিএসসিসি’র সচিব আকরামুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে তাকে চাকরি থেকে অপসারণ করা হয়। ডিএসসিসি’র চাকুরি বিধিমালা ২০১৯ এর বিধি ৬৪(২) মোতাবেক জনস্বার্থে এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের স্বার্থ রক্ষার্থে তাকে চাকরি থেকে অপসারণ করা হয়েছে বলে অফিস আদেশ উল্লেখ করা হয়েছে।

ইকবাল আহমেদ ডিএসসিসির প্রকৌশল বিভাগের বাজার (বিদ্যুৎ) বিল সহকারি হিসেবে ডিএসসিসিতে কর্মরত হলেও তিনি সংযুক্তিতে অঞ্চল-৫ এর রাজস্ব বিভাগে লাইসেন্স ও বিজ্ঞাপন সুপারভাইজার হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন। তিনি বিধি মোতাবেক ৯০ দিনের বেতন নগদ পাবেন এবং এজন্য তাকে করপোরেশন হিসাব বিভাগের সঙ্গে দ্রুত যোগাযোগ করে সকল দেনা-পাওনা বুঝে নিতেও নির্দেশনা প্রদান করা হয়। জনস্বার্থে জারিকৃত এই আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে আদেশ উল্লেখ রয়েছে।
উল্লেখ্য ইকবাল আহমেদের ব্যক্তিগত নথি পর্যালোচনায় দেখা যায়, তিনি ২০০৮ সালের ২৩ এপ্রিল তারিখে মাদকদ্রব্য বহনের অপরাধে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হন। পরবর্তীতে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজু করা হয়। এছাড়া দায়িত্ব পালনে অবহেলা, অসদাচরণ, তহবিল তছরুপ ও প্রতারণার দায়ে ইতোমধ্যে তার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ১৬ নভেম্বর, ২০১৭ সালের ১৩ এপ্রিল ও ২০১৮ সালের ৪ নভেম্বর পৃথক তিনটি বিভাগীয় মামলা রুজু করা হয়। হয়রানি ও ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে ডিএসসিসি’র ৫৪ নম্বর ওয়ার্ড এর তৎকালীন কাউন্সিলর হাজী মোহাম্মদ মাসুদ (বর্তমান কাউন্সিলরও) ২০১৮ সালের ৩১ মে করপোরেশন বরাবর তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: