সাহেদ ও সাবরিনার ব্যাংক হিসাব খতিয়ে দেখবে এনবিআর

মো. সাহেদ ও সাবরিনা চৌধুরীরিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদের ব্যাংক হিসাব জব্দ এবং ব্যাংক লেনদেনের তথ্য চেয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। একই সঙ্গে রিজেন্ট হাসপাতাল, রিজেন্ট কে সি লিমিটেড ও প্রতিষ্ঠানের পরিচালক ইব্রাহিম খলিলের ব্যাংক হিসাব জব্দ ও তথ্য চেয়েছে এনবিআর। এছাড়া জেকেজি হেলথ কেয়ারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিএফও) আরিফুল চৌধুরী, চেয়ারম্যান ও হৃদরোগ হাসপাতালের চিকিৎসক সাবরিনা আরিফ চৌধুরীর ব্যাংক হিসাব জব্দ ও ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়েছে এনবিআর। রবিবার (১২ জুলাই) এনবিআরের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সেল (সিআইসি) থেকে সব বাণিজ্যিক ব্যাংকে পৃথক চিঠি দেওয়া হয়েছে। এনবিআর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে বাংলাদেশ ব্যাংকের বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)সাহেদের ব্যাংক হিসাব জব্দ করে।

নমুনা পরীক্ষা না করেই ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে জেকেজি (জোবেদা খাতুন হেলথ কেয়ার) এর নির্বাহী কর্মকর্তা ও চেয়ারম্যানকে আটক করেছে পুলিশ। আর করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট প্রদান, করোনা চিকিৎসার নামে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণার দায়ে অভিযুক্ত রিজেন্ট হাসপাতাল সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

সিআইসি’র একজন কর্মকর্তা বলেন, ব্যাংকগুলোকে পাঠানো নির্দেশনায় সাহেদসহ অভিযুক্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের একক ও যৌথ নামে থাকা সব ধরনের ব্যাংক হিসাবে থাকা লেনদেন অপ্রচলযোগ্য (ফ্রিজ) করার নির্দেশনা দেওয়া হয়। এসব প্রতিষ্ঠানের গত পাঁচ বছরের তথ্য, কর ফাইলে দেখানো তথ্য মিলিয়ে দেখা হবে। এর মধ্যে অসামঞ্জস্য দেখা গেলে বিদ্যমান আয়কর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: