ধুমপায়ীদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বাজারে এলো গরুর দুধের সিগারেট

করোনাকালে ধুমপায়ীদের জন্য চারপাশে অনেক অনেক দুঃসংবাদের মাঝে আসলো একটি সুসংবাদ। সিগারেটের পুষ্টিগুণ বাড়িয়ে এর ক্ষতিকর প্রভাব কাটিয়ে উঠতে বাজারে আসলো গরুর দুধের সিগারেট। ফেসবুকে ঘুরতে থাকা একটি টং দোকানের বিজ্ঞাপন মারফত এমনটি জানা যায়। নাম না জানা এই টং দোকানের মামা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে জানায়, এখানে খাঁটি গরুর দুধের চা কফি সিগারেট পাওয়া যায়।

সিগারেট শিল্পে বিপ্লব নিয়ে আসা এই মামার সাথে কথা বলে জানা যায়, করোনাকালে নিজের কাস্টমারদের কথা চিন্তা করে তিনি এই উদ্ভাবনী সিগারেটটি বানিয়েছেন। ব্যাপন পদ্ধতিতে একটি বিশেষ প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই সিগারেটগুলো উৎপাদন করা হয়েছে। সিগারেটের নিকোটিনগুলোকে দুধের মধ্যে চুবিয়ে প্রক্রিয়াজাত করা হয়। দুধের সকল পুষ্টিগুণ চলে আসে নিকোটিনে, ফলে প্রতিটানে সুখের পাশাপাশি পাওয়া যায় অফুরন্ত পুষ্টি।

নিজের উদ্ভাবিত একটি খাঁটি গরুর দুধের সিগারেট হাতে নিয়ে ধুমপায়ীদের উদ্দেশ্যে মামা বলেন, ‘সিগারেটে দুধ মিশান সিগারেটের শক্তি বাড়ান।’

এই সিগারেটে ‘সিগারেট আফটার সেক্স’ পছন্দ করা ধুমপায়ীদের জন্যও রয়েছে স্পেশাল ফিচার। এতে দুধ দিয়ে তৈরি স্পেশাল নিকোটিন ব্যবহার করা হয়েছে। এই সিগারেট সম্পর্কে মামা আরও বলেন, ‘সেক্সের পর এমনিতে ডিহাইড্রেশন হয়, তার উপরে ছেলেমেয়েগুলা খায় সিগারেট। জিনিসটা বহুত রিস্কি। আমার এই সিগারেটে দুধের শর থাকায়, সেক্সের পর এই সিগারেট খেলে ডিহাইড্রেশন কমে যাবে।’

দুধের পুষ্টি সমৃদ্ধ এই সিগারেট বাজারে আসায় প্রেমিকা, স্ত্রী, বোন, বাবা, মায়েরা বেশ খুশি। তবে কিছু ক্লাসিক স্মোকার অবশ্য সিগারেটানুভূতিতে আঘাতও পেয়েছেন। এমনই একজন প্রশ্ন ছুড়ে দেন, ‘ঐ মিয়া সিগারেট কি হরলিক্স নাকি হ্যাঁ?’





আরও পড়ুন eআরকিতে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: