সুশান্তকে নানাভাবে অপমান করেছেন করণ

সুশান্ত সিং রাজপুত ও করণ জোহর। ছবি: টুইটারঅভিমানে ফোটেনি ফুল। ঝরে গেছে যে অকালে। তিনি সুশান্ত সিং রাজপুত। গত ১৪ জুন উপমহাদেশের বিনোদন দুনিয়াকে স্তম্ভিত করে কারও দিকে অভিযোগের আঙুল না তুলেই নীরবে, নিভৃতে চলে গেলেন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত। এক বুক হতাশা আর বিষণ্নতা নিয়ে চলে যাওয়ার আগে কোনো চিরকুট লেখেননি। শোকে স্তব্ধ বলিউডে সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও চলছে সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে নানামুখী গবেষণা। একে একে মুখ খুলছেন নেপোটিজমের শিকার অভিনয়শিল্পী ও পরিচালকেরা। আর এই ঝড়ে সবচেয়ে বেশি বিদ্ধ হলেন পরিচালক-প্রযোজক করণ জোহর।

বিশ্লেষণ চলছে নানাভাবে, নানান হিসেবে। শুরু থেকে, বিশেষ করে ভারতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানাভাবে কটাক্ষ করা হয়েছে করণ জোহরকে। রীতিমতো আন্দোলন! করণের সিনেমা বয়কট করতে হবে। এর মধ্যে সুশান্তের এক ভক্ত করণ জোহরের ‘কফি উইথ করণ’ দেখে তার চুলচেরা বিশ্লেষণ করলেন। সেখানেই তিনি দেখিয়ে দিলেন, করণ কীভাবে সুশান্তকে অপমান করেছেন।

শুধুই কি অপমান? অপমানের ভাষাতেও ছিল ভর্ৎসনার পরিচয়। এরপরই সুশান্তের সেই ভক্ত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লেখেন, ‘আরও জোরালো প্রতিবাদ হোক করণ জোহরের বিরুদ্ধে। সব রকমভাবে করণকে বয়কট করা হোক।’ বেশ কিছুদিন আগেই একটি অনলাইন পিটিশনে সই সংগ্রহের কাজ চলছিল। সেই পিটিশনে সালমান খান, করণ জোহর ও যশ রাজ ফিল্মসকে বয়কটের দাবিতে সই করেন প্রায় ৪১ লাখের বেশি মানুষ।সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর খবর পেয়ে করণ জোহর ছবিটি শেয়ার করেন তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে। ছবি: ইনস্টাগ্রামসামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সুশান্তের পক্ষে রণদীপ সরকার নামের এক তরুণ লেখেন, ‘আমি কফি উইথ করণের ওই পর্ব খুব ভালোভাবে দেখেছি। করণ মাত্র দুবার সুশান্তের নাম নিয়েছিলেন। বারবারই তাঁকে নানাভাবে অপমানের চেষ্টা করে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। অন্য একটি ভিডিওতে সুশান্তের এক সময়ের বান্ধবী কৃতি শ্যাননকে করণ জিজ্ঞেস করেছিলেন, পর্দায় তাঁকে কোন হিরোর সঙ্গে দেখতে ভালো? কার্তিক আরিয়ান নাকি সুশান্ত? সে পর্বে একটু অপ্রস্তুত হয়ে কৃতি উত্তর দিয়েছিলেন, “দুজনই, তবে ‘রাবতা’ ছবিতে সুশান্ত আর আমার রসায়ন হিট হয়েছিল।”সেই উত্তর শুনে করণ ব্যঙ্গের সুরে বলেন, “ও তাই নাকি? ‘রাবতা’য় রোমান্স ছিল নাকি! আমি তো সুশান্তকে রোমান্স করতেই দেখিনি।” করণের এমন মন্তব্যের জেরে কৃতি রেগে উত্তর দেন, “ঠিক আছে, কার্তিককেই আমার সঙ্গে সবচেয়ে বেশি মানায়। কিন্তু কেন তুমি আমাকে এভাবে খোঁচা মারছ।”’

এমন ঘটনা আরও আছে। আরেকটি পর্বে সুশান্তকে নিয়ে কৌতুক করেছিলেন করণ, পরোক্ষভাবে। অন্য শিল্পীর আশ্রয়ে। সোনম কাপুরকে তিনি জিজ্ঞাসা করেছিলেন, ‘সুশান্ত সিং রাজপুতকে রেটিং দাও। হট অর নট।’ তখন সোনম উত্তর দিয়েছিলেন, ‘কে সুশান্ত? আমি চিনি না। আর আমি ওর কোনো সিনেমাই দেখিনি।’ করণ পরিণীতি চোপড়াকেও এই একই প্রশ্ন করেছিলেন। ‘অর্জুন কাপুর, সুশান্ত সিং রাজপুত, রণবীর সিং আর শহীদ কাপুরের মধ্যে সহ-অভিনেতা হিসেবে কাকে পছন্দ?’ পরিণীতি চোপড়া উত্তর দিয়েছিলেন, ‘সুশান্ত বাদে সবাই হট।’ বলাই বাহুল্য, এই পরিণীতি সুশান্তের মৃত্যুর পরে টুইট করে লিখেছিলেন, ‘সুশ, তোমাকে আমি খুব মিস করব বন্ধু।’ সুশান্তকে কফি উইথ করণে এসে চিনতেও পারেননি আলিয়া ভাট। এমনকি বলেন, ‘কে সুশান্ত? আমি তো চিনি না।’সুশান্ত সিং রাজপুত। ছবি: টুইটারএসব ভিডিও নিয়ে বিশ্লেষণ চলছে। রণদীপ সরকার বলেন, ‘আমি বলার ভাষা হারিয়েছি। তাঁরা সুশান্তকে এতটা ঘৃণা করতেন? এখন মনে হয়, কঙ্গনা সত্যি কথাই বলেছিলেন।’

প্রসঙ্গত, সুশান্ত সিং রাজপুতের অকালমৃত্যুর খবরে শোকাহত করণ জোহর সরাসরি নিজেকে দোষারোপ করেছিলেন। মৃত্যুর খবরের ধাক্কা খানিকটা সামলে উঠেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টে তিনি লেখেন, ‘গত বছর তোমার সঙ্গে যোগাযোগ না রাখার জন্য অনুতপ্ত আমি। কখনো কখনো মনে হয়েছিল, তুমি তোমার জীবন নিয়ে বলতে চাও কাউকে, কিন্তু কোনো দিনই সেই অনুভূতি ভাগ করে নিতে পারিনি। আর কোনোদিন এই ভুল করব না।’

করণের এই উদার মন্তব্যও ভিন্ন চোখে দেখছেন কেউ কেউ। এই পোস্ট নিয়েও কেউ প্রশ্ন তুলেছিলেন। বলেছিলেন, কেন নিজে থেকে এই অপরাধবোধের প্রসঙ্গ তুললেন পরিচালক। তাহলে কি সবার চোখের আড়ালে থেকে গেছে কোনো অজানা অপ্রিয় সত্য?

এ ঘটনার জেরে করণ জোহরকে আনফলো করতে শুরু করেছেন নেটিজেনরা। ইতিমধ্যে করণ জোহরের ২৫ লাখ ভক্ত ঝরে গেছে। এখন আছে ১ কোটি ৭০ লাখ।





Source link

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: