বন্ধ হয়ে যাচ্ছে টিকটকের প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপ

facebook-shuts-down-lassoটিকটকের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ল্যাসো নামের একটি অ্যাপ চালু করেছিল ফেসবুক। আপাতত সেই অ্যাপটি আর চালাতে চাইছে না প্রতিষ্ঠানটি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের সাংবাদিক কেরি ফ্লিন টুইটারে এ তথ্য প্রকাশ করেছেন। ল্যাসো অ্যাপটি ১০ জুলাই বন্ধ হয়ে যাবে।

কেরির টুইটের সঙ্গে শেয়ার করা একটি ছবিতে দেখা গেছে, ফেসবুক তাদের ভিডিও অ্যাপটিকে ১০ জুলাই বন্ধ করবে বলে বার্তা দিয়েছে। 

ফেসবুক ইতিমধ্যে ল্যাসো অ্যাপ ব্যবহারকারীদের কাছে এটি বন্ধ হয়ে যাবে বলে বার্তা দিয়েছে। ল্যাসো প্ল্যাটফর্মে যাঁরা ভিডিও শেয়ার করেছেন, কীভাবে তা ডাউনলোড করে নেবেন তা নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানানো হচ্ছে।

ফেসবুক শুধু টিকটকের প্রতিদ্বন্দ্বী ল্যাসো নয়, একই সঙ্গে পিন্টারেস্টের প্রতিদ্বন্দ্বী ‘হবি’ অ্যাপটিও বন্ধ করে দিচ্ছে।

২০১৮ সালে গুগল প্লে স্টোর ও অ্যাপলের অ্যাপ স্টোরে ল্যাসো অ্যাপটি উন্মুক্ত করে ফেসবুক। ২০১৯ সালে মেক্সিকোতে অ্যাপটি পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়। গুগল প্লেস্টোরে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, অ্যাপটি ব্যবহার করে সহজে ছোট ভিডিও তৈরি ও বিভিন্ন ফিল্টার ও ইফেক্ট ব্যবহার করে তা মজার করে তোলা যায়।

টিকটকের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ল্যাসো চালু করা হলেও এটি কখনোই টিকটক আধিপত্যে আঁচড় কাটতে পারেনি। চীন ও ভারতের মধ্যে সীমান্ত উত্তেজনার মধ্যে তথ্য চুরির অভিযোগ দিয়ে টিকটককে সম্প্রতি ভারতে বাতিল করেছে ভারত সরকার।

আরও পড়ুন: এবার ‘ল্যাসো’ আনছে ফেসবুক
ফেসবুকের কর্মী ভাগিয়ে নিচ্ছে টিকটক





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: