ধর্ষণের অভিযোগকারী এনজিও কর্মীর বিরুদ্ধে বিজিবির মামলার শুনানি রবিবার

কক্সবাজারকক্সবাজারের দমদমিয়া চেকপোস্টে গত ৮ অক্টোবর বিজিবি সদস্যদের হাতে ধর্ষণে শিকার হওয়ার অভিযোগ তোলেন এক এনজিও কর্মী। এ ঘটনায় সীমান্তরক্ষী বাহিনীটি ওই নারীর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনার কথা উল্লেখ করে ১০ নভেম্বর মানহানি মামলা করে। রবিবার (২২ নভেম্বর) কক্সবাজার আদালতে এই মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। এদিন আদালতে এ ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদনও জমা দেওয়ার কথা রয়েছে।

বিজিবির দাবি, গত ৮ অক্টোবর টেকনাফে বিজিবি-২ ব্যাটালিয়নের দমদমিয়া চেকপোস্টে ওই এনজিও কর্মীকে তল্লাশি করা হয়। নিয়ম মেনে নারী সৈনিকদের দিয়েই তল্লাশি কাজ পরিচালনা করা হয়। তবে পরে এ ঘটনার জের ধরে ওই নারী বিজিবি সদস্যদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তোলেন। এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে বিজিবি ঘটনাটিকে ঐতিহ্যবাহী একটি বাহিনীর বিরুদ্ধে সম্মানহানির চেষ্টা বলে দেখে।

পরে এ ঘটনায় ১০ নভেম্বর দমদমিয়া তল্লাশি ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত নায়েব সুবেদার মোহাম্মদ আলী মোল্লা বাদী হয়ে ওই এনজিও কর্মীর বিরুদ্ধে কক্সবাজারের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ৫০০ ধারা অনুযায়ী মানহানির মামলা দায়ের করেন। 

এরপর আদালত সাত কার্যদিবসের সাক্ষীদের জবানবন্দিসহ প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দেন।

 





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: