আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় কাস্টমস কর্মচারীর ১৩ বছরের কারাদণ্ড

কারাদণ্ডখুলনায় আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় কাস্টমস হাউসের কর্মচারী রাফেজা বেগম ওরফে নাজমা হায়দার রাফিজাকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে এক কোটি ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে খুলনার বিভাগীয় বিশেষ আদালতের বিচারক জিয়া হায়দার এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণাকালে রাফেজা বেগম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রাফেজা বেগম চট্টগ্রাম কাস্টমসে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানা এলাকায়।

জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৯ এপ্রিল সোনাডাঙ্গা থানায় তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে দুদকের কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করেন দুদকের আরেক কর্মকর্তা শামীম ইকবাল। রাফেজা বেগমের স্বামী এমএম জাহাঙ্গীর আলমও কাস্টমস হাউসে কর্মরত। তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা রয়েছে।

আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান বলেন, ‘রাফেজা বেগম তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী। তদন্তে তার বিরুদ্ধে আয় বহির্ভূত বিপুল সম্পত্তির প্রমাণ পাওয়ায় ২৬ (১) ও ২৬ (২) ধারায় তাকে কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়েছে।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: