এ বছরে করোনা যাচ্ছে না, সহ্য করে যেতে বললেন সৌরভ

সৌরভ গাঙ্গুলি বলছেন বর্তমান করোনা-পরিস্থিতি নিয়ে। ফাইল ছবিকরোনাধাক্কায় এলোমেলো পুরো বিশ্ব। এই দুর্যোগে বিপর্যস্ত উপমহাদেশও। ভারত, বাংলাদেশ, পাকিস্তান—তিনটি দেশেই করোনা সংক্রমণ কমছে তো নাই, উল্টো বেড়ে চলেছে প্রতিদিন। কিন্তু এটির শেষ কবে? সৌরভ গাঙ্গুলি মনে করছেন, করোনা থেকে মুক্তি পেতে পেতে চলে যেতে পারে এ বছরের পুরোটাই।

করোনার প্রাদুর্ভাবে স্থগিত হয়ে গেছে বিশ্বের অনেক বড় বড় লিগ বা টুর্নামেন্ট। ভারতের আইপিএলও আছে এর মধ্যে। আবার কোথাও কোথাও নতুন স্বাভাবিকতায় শুরুও হচ্ছে খেলা। শোনা যাচ্ছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ না হলে আগামী সেপ্টেম্বরে হতে পারে আইপিএল। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলির কথায় অবশ্য মনে হচ্ছে, এ বছর মনে হয় না ভারতে এই টুর্নামেন্ট আয়োজন সম্ভব হবে।

কাল ভারতে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ছাড়িয়েছে। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত দেশের তালিকায় ভারত এখন তিনে। সম্প্রতি ভারতীয় ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়াল এক অনলাইন আড্ডায় যখন সৌরভের কাছে জানতে চাইলেন বর্তমান করোনা পরিস্থিতি কীভাবে দেখছেন, সেটির উত্তরে সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক বললেন, ‘আমার মনে হয়, আগামী দুই-তিন-চার মাস খুব কঠিন হবে। আমাদের এটা শুধু সহ্য করে যেতে হবে। এই বছরের শেষ দিকে কিংবা আগামী বছরের শুরুতে হয়তো আমরা হয়তো স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারব।’

বিসিসিআই সভাপতি যেখানে এ বছর করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার কোনো লক্ষণ দেখছেন না, আইপিএলে তাহলে ভারতে হবে কী করে? অবশ্য এরই মধ্যে আরব আমিরাত, শ্রীলঙ্কার পর নিউজিল্যান্ডও আইপিএল আয়োজনের আগ্রহ দেখিয়েছে। তবে বিসিসিআই এখনো এটি নিশ্চিত করে কিছু বলেনি। সৌরভ এখন তাকিয়ে টিকা আবিষ্কারের দিকে, ‘আমি টিকার অপেক্ষায় আছি। তার আগ পর্যন্ত আমাদের সতর্ক হয়ে চলতে হবে। আমরা জানি কী ঘটছে। আমরা অসুস্থ হতে চাই না। একবার টিকা আবিষ্কার হয়ে গেলে তখন সব স্বাভাবিক হয়ে আসবে।’

করোনার সংক্রমণ হয়তো একটা সময় সব জায়গায় নিয়ন্ত্রণে আসবে। কিন্তু করোনার প্রভাব কি সহজে যাবে? ক্রিকেটেও এর কিছু প্রভাব থেকে যাবে। এরই মধ্যে করোনার কারণে কিছু নিয়মে পরিবর্তনও এনেছে আইসিসি। করোনার সঙ্গে কীভাবে মানিয়ে নিতে হবে, বিষয়টি সৌরভ বোঝালেন এভাবে, ‘এটা অনেকটা ব্যাটিং কৌশলের মতোই। সব পিচে একভাবে ব্যাটিং করা যায় না। মন্থর উইকেটে করতে হয় এক কৌশলে। ঘূর্ণি উইকেটে আরেকরকম। ন্যাড়া উইকেটে আবার আরেকরকম। কোভিড এখন যে পর্যায়ে আছে, আগে আমাদের এখান থেকে বের হতে হবে। আশা করি, এ বছরের শেষ দিকে সব ঠিক হয়ে যাবে।’

 

 





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: