‘বায়োগ্রাফি অব নজরুল’ এখন সেন্সর বোর্ডে

শুটিংয়ে খায়রুল আনাম শাকিল, ডানে পোস্টারজাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে নিয়ে নির্মিত হলো ডকুফিল্ম ‘বায়োগ্রাফি অব নজরুল’। ফেরদৌস খান পরিচালিত বিশেষ এই কাজটি চলতি জুলাইয়ে জমা পড়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে।

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান নজরুল সেন্টার সূত্রে জানা গেছে, গত দেড়বছর ধরে গবেষণা, শুটিং ও সম্পাদনার কাজ শেষ করে ডকুফিল্মটির ফাইনাল প্রিন্ট চূড়ান্ত করা হয়। এটি এখন প্রস্তুত প্রদর্শনীর জন্য- অপেক্ষা শুধু ছাড়পত্রের।
৯৪ মিনিট ১২ সেকেন্ড ব্যাপ্তিকালের এই তথ্যচিত্রটি প্রযোজনা করেছেন আল আমীন খান, সার্বিক কাজের উপদেষ্টা হিসেবে ছিলেন কবি নজরুল ইন্সটিটিউটের সাবেক নির্বাহী পরিচালক ইকরাম আহমেদ।
পরিচালক ফেরদৌস খান বলেন, ‘‘জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জন্মস্থান অবিভক্ত বাংলার বর্ধমান জেলার আসানসোল মহকুমার চুরুলিয়ার বর্ণনার মধ্য দিয়ে শুরু হবে ‘বায়োগ্রাফি অব নজরুল’। এরপর কবির জন্মকাল, পিতা-মাতা ও পরিবার-পরিজন, বাল্যকাল, লেটোদলে গান গাওয়া, মক্তব ও প্রাথমিকে পড়াশোনা, আসানসোলে রুটির দোকানে কাজ, ময়মনসিংহ-ত্রিশালে পড়াশোনা-লজিং এবং আসানসোলে ফিরে স্থানীয় বিদ্যালয়ে ছাত্রজীবনের শেষদিন পর্যন্ত ঘটনার ধারাবর্ণনা ও দৃশ্যের মাধ্যমে উঠে আসবে এতে। এক কথায় নজরুলের পুরো জীবন তুলে ধরার প্রচেষ্টা ছিল এতে।’’
নজরুলের ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবনের বর্ণনার মধ্যে কুমিল্লায় আগমন, নারগিসের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হওয়া, প্রমীলার সঙ্গে বিয়ে, কলকাতায় বিভিন্ন বাড়িতে বসবাস, কৃষ্ণনগরে বসবাস ইত্যাদি বিষয় থাকছে। থাকছে কবির অসুস্থতা প্রসঙ্গ ও চিকিৎসা নিয়ে কথা।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদ্যোগে কবিকে সপরিবারে ঢাকায় নিয়ে আসা, জাতীয় কবির মর্যাদা দেওয়া এবং কবিকে জাতির জনকের নিখাদ ভালোবাসার নানাদিকও উঠে আসবে এতে।
ডকুফিল্মটির শুটিং করা হয়েছে- ঢাকা, ত্রিশাল, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, কলকাতা, চুরুলিয়া, আসানসোল, দুর্গাপুর, হুগলী, কৃষ্ণনগর ইত্যাদি স্থানে।
এতে নজরুল প্রসঙ্গে কথা বলেন জাতীয় অধ্যাপক ও কবি নজরুল ইন্সটিটিউট ট্রাস্টি বোর্ড চেয়ারম্যান ড. রফিকুল ইসলাম, জাতীয় অধ্যাপক প্রয়াত ড. আনিসুজ্জামান, আছেন প্রফেসর সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী। কবি পরিবারের সদস্যদের মধ্যে কবি পুত্রবধূ প্রয়াত উমা কাজী ও অপর পুত্রবধূ কল্যাণী কাজী, কবি নাতনী খিলখিল কাজী, ভ্রাতুষ্পুত্র চুরুলিয়ার রেজাউল কাজী, প্রয়াত শিল্পী খালিদ হোসেন, শিল্পী খায়রুল আনাম শাকিল, রামানুজ দাশগুপ্ত, ড. নুপুর গাঙ্গুলি, বাধন সেনগুপ্ত সহ অনেক শিল্পী গবেষক অংশ নেন এতে।
পরিচালক আশা করছেন, কয়েকদিনের মধ্যেই ‘বায়োগ্রাফি অব নজরুল’ সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পাবে। তবে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই আনুষ্ঠানিকভাবে মুক্তি পাবে এটি।





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: