বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে সিকিউরিটি পণ্য উৎপাদন করবে এক্সেল

বাংলাদেশে ‘হিকভিশন’র অত্যাধুনিক নিরাপত্তা যন্ত্রপাতিসহ অন্যান্য ব্র্যান্ডের ডিজিটাল ডিভাইস, নেটওয়ার্কিং, টেলিকম, এআই ও রোবটিকস যন্ত্রপাতি তৈরি করা হবে।  এসব কাজে কারখানা স্থাপনের জন্য গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটিতে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এক্সেল ইন্টেলিজেন্ট সলিউসন্স লিমিটেডকে দুই একর জমি বরাদ্দ করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সম্প্রতি রাজধানীর কাওরান বাজারের জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের কনফারেন্স রুমে বরাদ্দ জমি সংক্রান্ত এক দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম এবং এক্সেল ইন্টেলিজেন্ট সলিউসন্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গৌতম সাহা নিজ নিজ পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন— বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তা, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম জীনরহস্য উন্মোচনকারী অণুজীব বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. সমীর কুমার সাহা, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যান্ড অটোমেশনের (বাদসা) সহ-সভাপতি সাগর কুমার টিটো ও মাহসচিব জালাল আহমেদ প্রমুখ।

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম বলেন, ‘বাংলাদেশে নিরাপত্তা নজরদারি বিষয়ক যন্ত্রপাতিসহ অন্যান্য ডিজিটাল ও হাইটেক যন্ত্রপাতি উৎপাদন করার উদ্যোগের বিষয়টি খুবই আশাব্যঞ্জক।’  কারখানা স্থাপনসহ দ্রুত উৎপাদন শুরু করার কাজে এক্সেল ইন্টেলিজেন্ট সলিউসন্সকে সব ধরনের সহায়তা প্রদান করবে বলে তিনি আশ্বাস প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর বলেন, ‘আইসিটি খাতের উন্নয়ন ও প্রসারে বেসরকারি উদ্যোক্তাদেরকে সরকার প্রতিনিয়ত যেভাবে সাহায্য-সহযোগিতা করছে, তাতে আইসিটি কোম্পানিগুলো উৎসাহিত হয়ে দেশের হাইটেক পার্কগুলোতে কারখানা স্থাপননের  মাধ্যমে আইসিটি পণ্য উৎপাদন শুরু করেছে।’

এক্সেল ইন্টেলিজেন্ট সলিউসন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গৌতম সাহা বলেন, ‘তিন মাসের মধ্যে বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে হিকভিশন সিকিউরিটি ক্যামেরা ও আনুষঙ্গিক স্টোরেজসহ অন্যান্য যন্ত্রাংশ উৎপাদন শুরু হবে। পরবর্তীতে ক্রমান্বয়ে সেখানে অন্যান্য ব্র্যান্ডের ডিজিটাল ডিভাইস, নেটওয়ার্কিং, টেলিকম, এআই ও রোবটিককস যন্ত্রপাতি উৎপাদন করা হবে।’

 

 

 

 

 

 

 

 





সম্পূর্ণ রিপোর্টটি প্রথম আলোতে পড়ুন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: