কপিরাইট সচেতনতায় অনলাইন আয়োজন প্রশংসিত

সংগীত সংশ্লিষ্টদের মধ্যে কপিরাইট বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সম্প্রতি ভিন্ন ধারার উদ্যোগ নিয়েছেন বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস।

মেধাসম্পদ সংরক্ষণ ও পাইরেসি রোধে বাংলাদেশের গীতিকার, সুরকার, কণ্ঠশিল্পী এবং সংশ্লিষ্ট সবাইকে নিয়ে বিশেষ এই আয়োজনের নাম ‘সংগীত ও আমার অধিকার’। ইতোমধ্যে সফলতার সঙ্গে এ আয়োজনের দুটি পর্ব সম্পন্ন হয়েছে। প্রথম পর্বটি ছিল গীতিকারদের নিয়ে, পরের পর্ব ছিল সুরকারদের সঙ্গে।

আলোচনা ও বিভিন্ন প্রশ্নোত্তর পর্ব দিয়ে সাজানো হয়েছে অনুষ্ঠানটি। প্রাণবন্ত এ অনুষ্ঠানে মূল বক্তা হিসেবে আলোচনা-পরবর্তী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর প্রদান করছেন কপিরাইট অফিসের রেজিস্ট্রার অব কপিরাইটস জাফর রাজা চৌধুরী। আরও ছিলেন ডেপুটি রেজিস্ট্রার অব কপিরাইটস মুহাম্মাদ রায়হানুল হারুন।
বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসের তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা ও কারিগরি দিকটি পরিচালনা করছেন সংগীতশিল্পী জুয়েল মোর্শেদ জু।
সুরকারদের নিয়ে আয়োজনের দ্বিতীয় পর্ব সাজানো হয় ৬ জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়। এ পর্বের নাম ছিল ‘সুরকার ও তার অধিকার’। এতে অনলাইন লাইভে অংশগ্রহণ করেন নকীব খান, আশিকুজ্জামান টুলু, প্রিন্স মাহমুদ, ইমন সাহা, হৃদয় খান, ফাহিম ফয়সাল ও নাভেদ পারভেজ। পাশাপাশি ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে আসা বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন রেজিস্ট্রার অব কপিরাইটস জাফর রাজা চৌধুরী।


গত ২৯ জুন সন্ধ্যায় গীতিকবিদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘সংগীত ও আমার অধিকার’ শীর্ষক এ আয়োজনের প্রথম পর্ব। আয়োজনে গীতিকার হিসেবে অনলাইন লাইভে অংশগ্রহণ করেছেন, হাসান মতিউর রহমান, লতিফুল ইসলাম শিবলী, কবির বকুল, আহমেদ রিজভী, জুলফিকার রাসেল ও রবিউল ইসলাম জীবন।
অন্যদিকে কণ্ঠশিল্পীদের অংশগ্রহণে এই আয়োজনের তৃতীয় ও শেষ পর্ব অনুষ্ঠিত হবে ৯ জুলাই সন্ধ্যা ৭টায়।
ইতোমধ্যে অনুষ্ঠানটি সংগীতাঙ্গনে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। আর পুরো অনুষ্ঠানটি সরাসরি প্রচার হচ্ছে বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজ থেকে।





আরও পড়ূন বাংলা ট্রিবিউনে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: