পিরোজপুরে ইউএনও অফিসে দুজনের মৌখিক পরীক্ষার কার্যক্রম স্থগিত

হাইকোর্টপিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলা নির্বাহী অফিসে অফিস সহকারী পদে লিখিত পরীক্ষা ছাড়াই দুই প্রার্থীকে সরাসরি মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ দেখানো নোটিশের কার্যক্রম স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। এক রিট আবেদনের শুনানিতে মঙ্গলবার (৭ জুলাই) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটকারীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. জহুরুল ইসলাম মুকুল।
এর আগে গত ১৬ মার্চ পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলা নির্বাহী অফিসে দুজন অফিস সহকারী নিয়োগের বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। ৩০ মার্চের মধ্যে স্থানীয় ২৬০ জন নিয়োগ প্রার্থী নিয়োগ পরীক্ষার জন্য আবেদন জানান। পরীক্ষার উদ্দেশে তারা প্রত্যেকে ৩০০ টাকা ব্যাংক ড্রাফটও করেন। ওই পরীক্ষায় রিটকারী পিরোজপুরের রামচন্দ্রপুর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছোট ভাইও আবেদন জানান।
তবে করোনা পরিস্থিতিতে ওই নিয়োগ প্রক্রিয়া কিছুদিনের জন্য থেমে যায়। অথচ এর মধ্যেই হঠাৎ করে কোনও লিখিত পরীক্ষা ছাড়াই বেআইনিভাবে প্রার্থীদের মধ্য থেকে দুজনকে সরাসরি মৌখিক পরীক্ষার জন্য নাম চূড়ান্ত করে একটি নোটিশ জারি করা হয়। আগ্রহী প্রার্থীদের কোনও পরীক্ষার সুযোগ না দিয়ে পছন্দের দুই প্রার্থীকে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য জারিকৃত ইউএনও’র নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। সে রিটের শুনানি নিয়ে আদালত আদেশ দিলেন।
স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সচিব ও বরিশালের জেলা প্রশাসকসহ চারজনকে রিটে বিবাদী করা হয়।





আরও পড়ূন বাংলা ট্রিবিউনে

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

%d bloggers like this: